বাক্য নির্মাণের শর্ত উদ্দেশ্য ও বিধেয়

class10  wbbse বাংলা বিষয়ে একটি অন্যতম পাঠ্য বাক্য এবং বাক্য নির্মাণের শর্ত |এই সিরিজে এই  বাক্য নির্মাণের শর্ত থেকে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর খুব সুন্দর ভাবে সাজানো হয়েছে। প্রিয় ছাত্র-ছাত্রী উত্তরগুলি দেখার পাশাপাশি প্রশ্নের উত্তর লেখার কৌশলটি ভালোভাবে লক্ষ্য কর| মাধ্যমিক বাংলা বিষয়ে আরো অন্যান্য বিষয়ের প্রশ্ন উত্তর জানতে অবশ্যই  click here

বাক্য নির্মাণের শর্ত

১) বাক্য নির্মাণের শর্ত কটি এবং কি কি ?
উঃ বাক্য নির্মাণের শর্ত তিনটি:- যোগ্যতা আকাঙ্ক্ষা এবং আসত্তি।

২) একটি পূর্ণাঙ্গ ও অর্থপূর্ণ বাক্যের কি কি গুন থাকা প্রয়োজন?
উঃ একটি পূর্ণাঙ্গ ও অর্থপূর্ণ বাক্যের তিনটি গুণ থাকা প্রয়োজন :- যোগ্যতা আকাঙ্ক্ষা এবং আসত্তি

৩) বাক্যের যোগ্যতা বলতে কী বোঝো? একটি উদাহরণ দাও।
উঃ বাক্যে পদগুলির পারস্পরিক অর্থগত এবং ভাবগত সঙ্গতিকেই যোগ্যতা বলা হয়।
উদাহরণ:- “পূর্ব দিকে সূর্য অস্ত যায়”- এই বাক্যটির যোগ্যতার অভাব আছে। কারণ বাক্যটিতে অর্থগত এবং ভাগবত অসঙ্গতি আছে। বাক্যটি যোগ্যতা সম্পন্ন করতে গেলে হবে- “পূর্ব দিকে সূর্য উদিত হয়”

৪) আকাঙ্ক্ষা বলতে কী বোঝো? একটি উদাহরণ দাও।
উঃ বাক্যের পরিপূর্ণ অর্থ গ্রহণের জন্য এক পদের পর অন্য পদ শোনার যে আগ্রহ থাকে তাকেই বলা হয় আকাঙ্ক্ষা।
উদাহরণ:- “পূর্ব দিকে সূর্য”- এই বাক্যটিতে বক্তার শ্রোতার শোনার আগ্রহ অপূর্ণ থেকেছে। তাই বাক্যটিতে শ্রোতার আগ্রহ পূর্ণ করতে গেলে বাক্যটিকে পূর্ণ করতে হবে। যেমন, “পূর্ব দিকে সূর্য উদিত হয়”

৫) আসত্তি কাকে বলে? একটি উদাহরণ দাও। 
উঃ বাক্যে ব্যবহৃত পদগুলিকে অর্থ-পরিস্ফত করার জন্য, ক্রম অনুযায়ী যথাস্থানে সাজানোকেই বলা হয় আসত্তি।
উদাহরণ:- “পড়া করে ছেলেটি ক্লাসে” এই বাক্যটির পদগুলি যথাস্থানে ক্রম অনুযায়ী সাজানো নেই। তাই অর্থ পরিষ্ফুট হচ্ছে না। বাক্যটিকে অর্থ পরিস্ফুট করতে গেলে পদগুলিকে ক্রম অনুযায়ী সাজাতে হবে। যেমন “ক্লাসে ছেলেটি পড়া করে”

মাধ্যমিকে যেমন প্রশ্ন আসে

১) “সূর্য পূর্ব দিকে অস্ত যায়”- এখানে বাক্যের কোন শর্তটি মানা হয়নি?

  • ক) যোগ্যতা
  • খ) আকাঙ্ক্ষা
  • গ) আসত্তি
  • ঘ) কোনোটিই নয়    উঃ ক)যোগ্যতা

২) বাক্য নির্মাণের প্রধান শর্ত কটি?

  • ক) দুটি
  • খ) তিনটি
  • গ) চারটি
  • ঘ) পাঁচটি     উঃ ঘ) তিনটি

৩) “ভালো ছেলেকে সকলে ঘৃণা করে”- বাক্যটিতে কোন শর্ত লঙ্ঘিত হয়েছে?
উঃ “ভালো ছেলেকে সকলে ঘৃণা করে”- এই বাক্যটিতে যোগ্যতার শর্তটি লঙ্ঘিত হয়েছে। বাক্যটি শুদ্ধ করে লিখলে হবে- “ভালো ছেলেকে সকলে ভালোবাসে”

৪) “সূর্য পূর্ব দিকে” এই বাক্যটির অর্থ সম্পূর্ণ করতে গেলে কোন শর্তকে পূরণ করতে হবে?
উঃ “সূর্য পূর্ব দিকে”  বাক্যটির অর্থ সম্পূর্ণ করতে গেলে বাক্যটির আকাঙ্ক্ষা শর্তটিকে পূরণ করতে হবে। বাক্যটির শর্ত পূরণ করে লিখলে হবে- “সূর্য পূর্ব দিকে উদিত হয়”

৫) “ছেলেটি ফেল পরীক্ষায় করেছে” বাক্যটিতে কোন শর্ত মানা হয়নি?
উঃ “ছেলেটি ফেল পরীক্ষায় করেছে”- এই বাক্যটিতে আসক্তির শর্তটি মানা হয়নি। বাক্যটির শর্ত পূরণ করে লিখলে হবে “ছেলেটি পরীক্ষায় ফেল করেছে”

৬) “রবীন্দ্রনাথ ইংরেজি সাহিত্যের কবি”- বাক্যটিতে কিসের অভাব আছে?
উঃ “রবীন্দ্রনাথ হলেন ইংরেজি সাহিত্যের কবি”- বাক্যটিতে যোগ্যতার অভাব আছে।

টিপস – (যোগ্যতা হলে বাক্যটি অর্থ মিথ্যা থাকবে, আকাঙ্ক্ষা হলে বাক্যটির অর্থ সম্পূর্ণ হবে না আসত্তি হলে বাক্যটির পদগুলি উল্টোপাল্টা থাকবে)

উদ্দেশ্য ও বিধেয় সম্পর্কে ধারণা

১) উদ্দেশ্য কাকে বলে?
উঃ বাক্যের যে অংশ সম্বন্ধে কিছু বলা হয় তাকে উদ্দেশ্য বলা হয়। যেমন- “ছেলেটি পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে”- এই বাক্যের “ছেলেটি” হল উদ্দেশ্য।

২) বিধেয় কাকে বলে?
উঃ যে বাক্যের উদ্দেশ্য সম্পর্কে কিছু বলা হয় তাকে বিধেয় বলে। যেমন-“ছেলেটি পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে”- এই বাক্যের “পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে”- অংশটি হলো বিধেয়।

৩) সম্প্রসারিত উদ্দেশ্য কাকে বলে? উঃ যদি এক বা একাধিক বিশেষণ বা বিশেষণস্থানীয় পদ দ্বারা উদ্দেশ্য সম্প্রসারিত হয়, তখন তাকে সম্প্রসারিত উদ্দেশ্য বলে। যেমন:- “রবীন্দ্রনাথ গল্প লেখেন”- এই বাক্যটি উদ্দেশ্য সম্প্রসারিত করলে হবে- বাঙালি কবি রবীন্দ্রনাথ গল্প লেখেন- এক্ষেত্রে বাঙালি কবি হলো উদ্দেশ্য পদ, সুনীল এর সম্প্রসারণ। অর্থাৎ বাঙালি কবি রবীন্দ্রনাথ হলো সম্প্রসারিত উদ্দেশ্য।

৪) সম্প্রসারিত বিধেয় কাকে বলে? 
উঃ বাক্যের বিধেয় অংশটি যদি কোন বিশেষণ বা  বাক্যাংশের দ্বারা সম্প্রসারণ করা হয় তখন তাকে সম্প্রসারিত বিধেয় বলে। যেমন- “রবীন্দ্রনাথ গল্প লেখেন”- বাক্যটিতে বিধেয় সম্প্রসারিত করে লিখলে হবে, “রবীন্দ্রনাথ খুব ভালো বাংলা গল্প লেখেন” এখানে “খুব ভালো বাংলা” হল “গল্প লেখেন” এই বিধেয় এর সম্প্রসারিত অংশ

মাধ্যমিকে যেমন প্রশ্ন আসে

১) বিধেয় প্রসারকের একটি উদাহরণ দাও।
উঃ “ছেলেটি খেলা করে”- বাক্যটিকে বিধেয় প্রসারিত করে লিখলে হবে- ছেলেটি প্রতিদিন খেলা করে > ছেলেটি প্রতিদিন স্কুল থেকে এসে খেলা করে।

২) উদ্দেশ্য সম্প্রসারকের একটি উদাহরণ দাও।
উঃ “সায়ন্তী একাদশ শ্রেণীতে পড়ে”- বাক্যটি উদ্দেশ্য সম্প্রসারণ করে লিখলে হবে- “আমার বন্ধবী সায়ন্তি একাদশ শ্রেণীতে পড়ে” >  “আমার বান্ধবী কাশিপুরে বাড়ি সায়ন্তি একাদশ শ্রেণীতে পড়ে”।

৩) “সুব্রত কবিতা লেখেন” বাক্যটির উদ্দেশ্য সম্প্রসারিত করে লেখ।
উঃ “সুব্রত কবিতা লেখেন”- বাক্যটির উদ্দেশ্যে সম্প্রসারিত করে লিখলে হবে- “বাংলা ভাষার স্বনামধন্য বাঙালি কবি সুব্রত কবিতা লেখেন”। সুতরাং “বাংলা ভাষার স্বনামধন্য বাঙালি কবি”- হলো উদ্দেশ্য সম্প্রসারক।

৪) “কমল খেলে” বাক্যটির বিধেয় সম্প্রসারিত করে লেখ।
উঃ “কমল খেলে”- বাক্যটির বিধেয় সম্প্রসারিত করে লিখলে হবে- “কমল খুব ভালো ক্রিকেট খেলে”। সুতরাং “খুব ভালো ক্রিকেট” হল বিধেয় সম্প্রসারক

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Read More

Recent